৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৬ই রবিউল আউয়াল, ১৪৪৪ হিজরি
www.motherlandnewsbd.com

মাদক নির্মূলে প্রতিনিয়ত অভিযানে তৎপর ওসি “রাকিবুল হাসান”। মাদারল্যান্ড নিউজ

ওসি রাকিবুল হাসান

স্টাফ রিপোটার:
সদ্য বদলী হয়ে তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা খায়রুল ইসলাম (ওসি) গোদাগাড়ী থানায় যোগদানের পরে থেকে তানোর থানায় সাময়িক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্ব পান তানোর থানায় ওসি তদন্ত হিসেবে কর্মরত থাকা অফিসার রাকিবুল হাসান (ওসি)। তিনি দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই রাজশাহী জেলার পুলিশ সুপার জনাব মোঃ শহিদুল্লাহ বিপিএম, পিপিএম মহোদয়ের নির্দেশনায় তার নেতৃত্বে থানা স্টাফদের সহযোগিতায় প্রতিনিয়ত মাদক সহ বিভিন্ন গ্রেফতারী পরোয়ানা ভূক্ত আসামী গ্রেফতারে বিশেষ ভুমিকা পালন করে যাচ্ছেন।

১৮ই নভেম্বর ২০১৯ ইং এর পর থেকে তার এই অভিযানে মাদক সহ গ্রেফতারী পরোয়ানার একাধিক নারী পুরুষ আসামি গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হইয়াছে।

গত ১৯ নমস্কার তানোর থানা এলাকা হইতে ৩০ গ্রাম গাঁজাসহ আসামী মোঃ শফিকুলকে এবং গ্রেফতারী পরোয়ানা ভূক্ত আসামী মোঃ আঃ রাজ্জাককে গ্রেফতার করিয়া আদালতে সোপর্দ করা হইয়াছে।

গত ২০ নভেম্বর রাজশাহী জেলার পুলিশ সুপার জনাব মোঃ শহিদুল্লাহ বিপিএম, পিপিএম মহোদয়ের নির্দেশনায় তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রাকিবুল হাসান, এর নেতৃত্বে এসআই(নিঃ) মোঃ রুহুল আমীন এসআই(নিঃ) মোঃ আনোয়ার হোসেন এএসএস(নিঃ) মোঃ মুকুল হোসেন এএসআই(নিঃ) মোঃ ইউনুস আলী এএসআই(নিঃ) পলাশ রায় সঙ্গীয় ফোর্স সহ তানোর থানা এলাকা হইতে ০৯ লিটার চোলাইমদ সহ আসামী সঞ্জমুনি হেমরম(৫৫), স্বামী-সরকার মুর্মূ, মাতা-মৃত রেন্ডি কিস্কু, সাং-বনকেশর (ডাঙ্গাপাড়া), থানা-তানোর, জেলা-রাজশাহী ও ২৫ গ্রাম গাঁজা আসামী মোঃ মিলন(২২), পিতা-মৃত জুয়েল, সাং-কুঠিপাড়া, থানা-তানোর জেলা-রাজশাহী এবং সেবন কারী আসামী ১। মোঃ সোলাইমান আলী@ সুজন(২৬), পিতা-মোঃ সেলিম রেজা, সাং-পারিশো দুর্গাপুর, ২। মোঃ শামীম আক্তার(৪৭) পিতা মোঃ আব্দুল কাশেম, সাং-দেবীপুর, উভয় থানা-তানোর, ৩। মোঃ সাইদুর রহমান(৩৫) পিতা-মোঃ মহির উদ্দিন, সাং-কোন্দা হরিপুর, থানা-বাগমারা, সর্ব জেলা-রাজশাহী
এবং গ্রেফতারী পরোয়ানা ভূক্ত আসামী মোঃ নাজমুল, পিতা-সাদেক, সাং-মাসিন্দা, মোঃ শফিকুল ইসলা, সাং-কোয়েল হাট, শ্রী রুবেল মুর্মূ, পিতা-সোনাতন মুর্মু, সাং-অমৃতপুর, সর্ব থানা-তানোর, জেলা-রাজশাহীগণদেরকে গেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হইয়াছে।

গত ২১ নভেম্বর তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রাকিবুল হাসান, এর নেতৃত্বে  এসআই(নিঃ) মোঃ হামিদুল ইসলাম, এএসআই(নিঃ) মোঃ রকিবুল হাসান, এএসআই(নিঃ) মোঃ শাহাদত হোসেন, সঙ্গীয় ফোর্সসহ তানোর থানা এলাকা অভিযান পরিচালনা করিয়া আসামী ১। নিপা মুর্মূ(৪৫), পিতা-লক্ষীরাম মুর্মূ, মাতা-বিউটি সরেন, সাং-মোহর মিশনপাড়া, থানা-তানোর, জেলা-রাজশাহীকে ০৭ লিটার চোলাইমদ ও গ্রেফতারী পরোয়ানা ভূক্ত আসামী ২। মোঃ বরকত আলী, ৩। শ্রী গোপাল চন্দ্র দাসগনকে গেফতার করে বিজ্ঞ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

গত ২২ নভেম্বর তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রাকিবুল হাসান, এর নেতৃত্বে তানোর থানার অফিসার ও ফোর্স সহ তানোর থানা এলাকা হইতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করিয়া গ্রেফতারী পরোয়ানা ভূক্ত আসামী ১। মোঃ শাহিন হোসেন, পিতা- মোঃ সামসুদ্দিন সাং-দুবইল উত্তরপাড়া,সাজাপ্রাপ্ত আসামী ২। মোঃ রফিকুল ইসলাম পিতা-মৃত কেফাতুল্লাহ সাং মোহর লছিরামপুর ৩। মোসাঃ অলেকা স্বামী-ইসরাফিল সাং-চিমনা সর্ব থানা-তানোর জেলা রাজশাহীগনকে গ্রেফতার করিয়া বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হইয়াছে।

গত ২৩ নভেম্বর তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রাকিবুল হাসান, এর নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক(নিঃ) মোঃ সাইফুল ইসলাম, এসআই(নিঃ) মোঃ জামাল উদ্দিন, এসআই(নিঃ) মোঃ আনোয়ার হোসেন এএসএস(নিঃ) মোঃ শাহাদত হোসেন, এএসআই(নিঃ) মোঃ হাফিজুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স সহ তানোর থানা এলাকা বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে হইতে ০৮ লিটার চোলাইমদ সহ আসামী ১। নমিতা হেমরম(৩০), পিতা-মৃত রবিন হেমরম, সাং-মোহর সল্লাপাড়া, থানা-তানোর, জেলা-রাজশাহী-কে ও ২৫ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ আসামী মোঃ জাহাঙ্গীর আলম (২৮), পিতা- মোঃ মুকুল, সাং- ভুষনা,থানা- গোদাগাড়ী, জেলা-রাজশাহীকে এবং ১১ পিচ ইয়াবা ট্যাবলেটর সহ ১। মোঃ শাফিউল (২৭), পিতা- মোঃ আজিমুদ্দিন  ২। মোঃ মমিন (১৯), পিতা- মোঃ হাবিবুর রহমান উভয় সাং- চুনিয়াপাড়া, থানা- তানোর, জেলা-রাজশাহীদ্বয়কে গেফতার করে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে ।

এ বিষয়ে ওসি রাকিবুল হাসান বলেন, এসপি স্যারের নির্দেশনায় আমাদের এ অভিযান অব্যাহত থাকবে। মাদক মানব দেহের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকারক। তাই তানোর এলাকার মাদক ও বিভিন্ন অপকর্ম নির্মূলে এলাকা বাসির স্বতঃস্ফূর্তভাবে সহযোগিতা কামনা করছি।

প্রকাশিত: মাহবুব আলম জুয়েল (সম্পাদক ও প্রকাশক)
০১৭১১২৭০৪৩৩, ০১৫১১২৭০৪৩৩

Share Button


     এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ